আপনার চুল শীতকালে যে ৬টি ভুলে নষ্ট হতে

0
42
views

শীতকালের শুষ্ক তাপমাত্রায় ত্বক খুব সহজেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কিন্তু অনেকেই জানেন না, চুলের জন্যেও এই আবহাওয়া ক্ষতিকর। চুলে থেকেও আর্দ্রতা কেড়ে নিতে পারে শুষ্ক বায়ু, এতে চুল রুক্ষ হয়ে যায়, সহজেই ছিঁড়ে যায়। শুধু তাই নয়, শীতকালের কিছু অভ্যাসেও আমাদের চুলের জন্য খারাপ। দেখে নিন আপনার কী কী অভ্যাসে চুল ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এই মৌসুমে-

১) ভেজা চুলে বাইরে যাওয়া

ভেজা চুলে বাইরে গেলে অনেকেরই ঠাণ্ডা লেগে যায়। ঠাণ্ডা না লাগলেও, ভেজা চুলে বাইরে যাওয়াটা আসলে আপনার চুলের জন্য ক্ষতিকর। এ সমস্যা সমাধানে দুইটি কাজ করা যেতে পারে। রাত্রে গোসল করে ঘুমাতে পারেন। অথবা সকালে গোসল করলে ব্লো ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকিয়ে তারপর বাইরে বের হতে পারেন। ড্রায়ার ব্যবহার করলে অবশ্য হেয়ার প্রটেক্টিং স্প্রে বা ক্রিম ব্যবহার করতে হবে।

২) চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার না করা

শীতকালে চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখতে হাইড্রেটিং কন্ডিশনার, মাস্ক ও ট্রিটমেন্ট ব্যবহার করা উচিত। এসব ব্যবহারে ত্বক সুস্থ থাকবে। এ সময়ে চুলে তেল ব্যবহার করাটাও উপকারী। এসব ব্যবহারে ত্বক পরিবেশের শুষ্কতা থেকে নিরাপদ থাকবে।

৩) গরম পানিতে চুল ধোয়া

গরম পানি যেমন ত্বক শুষ্ক করে দিতে পারে, তেমনই তা চুল ও মাথার তালু থেকেও আর্দ্রতা কেড়ে নিতে পারে। মাথা ধোয়ার জন্য ঠাণ্ডা বা একদম হালকা গরম পানি ব্যবহার করুন। এতে চুল ভালো থাকবে। একেবারে ঠাণ্ডা বা খুব গরম পানি দুটোই ত্বক ও চুলের জন্য ক্ষতিকর।

৪) চুল বেশি ধোয়া

অনেকেই প্রতিদিন শ্যাম্পু করেন। কিন্তু শীতকালেও তা করাটা উপকারী নয়, বরং ক্ষতিকর। যাদের চুল কোঁকড়া, তাদের জন্য এটা বেশি ক্ষতিকর। স্ট্রেইট চুল শ্যাম্পু করা দরকার ২-৩ দিন পর পর। আর কোঁকড়া চুল শ্যাম্পু করা দরকার ৪-৫ দিন পর পর। যাদের চুল তৈলাক্ত, তারা ভাবেন ঘন ঘন শ্যাম্পু করলে চুল ভাল থাকবে। আসলে শ্যাম্পু বেশি করার কারণে মাথার তালুতে তেলের উৎপাদন আরও বেড়ে যায়। চুলে যেভাবে কন্ডিশনার মাখেন, সেভাবেই শ্যাম্পু মাখুন। এরপর চুল ধুয়ে কন্ডিশনার দিন। কন্ডিশনার মেখে এরপর চুল উঁচু করে বেঁধে রাখুন কয়েক মিনিট। এরপর মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে নিন ও কন্ডিশনার ধুয়ে ফেলুন।

৫) অ্যালকোহলযুক্ত পণ্য ব্যবহার

শীতে শুষ্ক চুলের জন্য অ্যালকোহলযুক্ত পণ্য খুবই ক্ষতিকর কারণ তা চুলকে আরও শুষ্ক করে দিতে পারে। কিছু কিছু পণ্যে সাধারণত অ্যালকোহল থাকে যেমন হেয়ারস্প্রে, হিট প্রটেক্টিং স্প্রে এমনকি সল্ট স্প্রে। এগুলো শীতকালে এড়িয়ে চলা উচিত। পণ্যের উপাদানের লিস্ট পড়ে দেখুন। পণ্যে ইথানল, ইথাইল অ্যালকোহল, প্রোপানল, ইয়াসোপ্রোপাইল অ্যালকোহল, আইসোপ্রোপানল, ডিন্যাচারড অ্যালকোহল ও বেনজাইল অ্যালকোহল সহজে চুলের ক্ষতি করে।

তবে অন্যদিকে কিছু কিছু অ্যালকোহল চুলের জন্য উপকারীও হতে পারে, যেমন সেটাইল, স্টিয়ারিল, সেটিয়ারিল, মাইরিস্টিল, বেহেনাইল ও লরাইল অ্যালকোহল।

৬) বেশি সময় টুপি পরে থাকা

শীতকালে কান ও মাথা গরম রাখতে নারী-পুরুষ সবাই ব্যবহার করেন উলের বা অন্য কোনো গরম কাপড়ের হ্যাট। কিন্তু এসব টুপি চুলের ক্ষতি করতে পারে। বারবার টুপি খোলা ও পরার কারণে চুল ছিঁড়ে যেতে পারে। সারাদিন টুপি পরে থাকলে ঘর্ষণ থেকে চুল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাহলে কী করবেন? হ্যাট পরা বন্ধ করে দেবেন? না, বরং ব্যবহার করুন মসৃণ কাপড়ে তৈরি টুপি যাতে চুল ভালো থাকে। হ্যাটের ভেতরের দিকে সিল্ক বা সাটিনের লাইনিং দেওয়া থাকলে ভাল। সারাদিন না পরে থেকে কিছু সময় মাথা খুলে রাখুন। এছাড়া একই জায়গায় বারবার সিঁথি না করে সিঁথির জায়গা পাল্টান।