ডাক্তার চেম্বার

বিশেষজ্ঞ ক্যাটাগরী

হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ • বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ • নিউরোলজিষ্ট • ইএনটি বিশেষজ্ঞ • ইউরোলজী বিশেষজ্ঞ

চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ • লিভার রোগ বিশেষজ্ঞ • কিডনী রোগ বিশেষজ্ঞ • গাইনী বিশেষজ্ঞ

বার্ণ ও প্লাস্টিক সার্জন •বাত, ব্যাথা ও প্যারালাইসিস বিশেষজ্ঞ • স্কিন স্পেশালিস্ট

শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ •পালমোনলজিস্ট বিশেষজ্ঞ• মেডিসিন বিশেষজ্ঞ • মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞ • ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ • ডেন্টিস্ট

কসমেটিক সার্জন • অর্থোপেডিক স্পেশালিস্ট • ডায়বেটিস বিশেষজ্ঞ • সার্জারী বিশেষজ্ঞ •এন্ডোক্রিনলজি-বিশেষজ্ঞ •অন্যান্য

সারা জীবনে একবারও ডাক্তারের কাছে যাননি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া খুবই বিরল। জরুরী মুহূর্তে চিকিৎসকরা রোগীদের পাশে দাড়িয়ে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা  ও পরামর্শ দিয়ে থাকেন। বর্তমান যুগে রোগের দৌরাত্ব অনেক বেড়েছে। তাই ভিন্ন ভিন্ন রোগের উপর ডিগ্রীধারী বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের চেম্বারে প্রতিনিয়ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে চলছে। ঢাকার নামীদামী হাসপাতালে ও ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে চেম্বার নিয়ে এসব ডাক্তার রোগী দেখেন।

 

 

রোগী দেখানোর সময়সূচী ও নাম লিখানোর নিয়ম

বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের কাছে রোগী দেখানোর জন্য ৩ মাস পর্যন্ত ১ দিন আগে নাম লিখতে হয়। ফোনে অথবা সরাসরি গিয়ে নাম লিখানো যায়। এসব ডাক্তাররা সাধারণত বিকালে চেম্বারে গিয়ে রোগী দেখেন।

 

প্রেসক্রিপশন ফি

বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের প্রেসক্রিপশন ফি সাধারণত ৫০০ থেকে ৮০০ টাকা মধ্যে হয়ে থাকে। রিপোর্ট দেখা ও পরবর্তী সাক্ষাতকারে রোগীদের কাছ থেকে প্রথমবার থেকে কম টাক রাখা হয়। অনেক ডাক্তার রিপোর্ট দেখতে  কোন ফি রাখেন না।

 

টেষ্টের সুবিধা

যদি কোন ডাক্তারের চেম্বার কোন হাসপাতালে বা ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে হয় তবে ঐ চেম্বারে আগত রোগীরা তাদের প্রয়োজনীয় টেষ্টগুলো সেখান থেকে করিয়ে নিতে পারেন। টেষ্টের ধরনের উপর খরচ নির্ভর করবে।

 

গরীবদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা

কোন কোন মহৎ হৃদয় ডাক্তার স্ব-উদ্যোগে গরীব রোগীদের বিনা ফি’তে চিকিৎসা সেবা প্রদান করে থাকেন। সাধারণত কোন ক্লাব বা সোসাইটির পক্ষ থেকে তারা এসব রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করে থাকেন।

 

বিবিধ

রোগীদের প্রয়োজন অনুযায়ী এসব ডাক্তার ৩ থেকে ৩০ মিনিট পর্যন্ত সময় দিয়ে থাকেন। প্রতিদিন গড়ে ৩০ থেকে ৯০ জন রোগী দেখে থাকেন। চেম্বারগুলো সাধারণত শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হয়ে থাকে।