বছরে ৫৫ হাজার মানুষ মারা যায় জলাতঙ্কে

0
241

জলাতঙ্ক একটি ভয়ঙ্কর মরণব্যাধি। জলাতঙ্কের কারণে পৃথিবীতে প্রতি ১০ মিনিটে একজন মানুষের মৃত্যু ঘটে।  সে হিসেবে বছরে প্রায় ৫৫ হাজার মানুষ এ রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

বিশ্ব জলাতঙ্ক দিবস।  বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও দিবসটি পালন হয়েছে। ২০০৭ সালে সর্বপ্রথম বিশ্ব জলাতঙ্ক দিবস পালন হয়।  দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য বিষয় ‘জলাতঙ্ক অপরকে জানান, জীবন বাঁচান’।

বাংলাদেশে প্রতি বছর প্রায় দুই থেকে তিন লাখ মানুষ কুকুর ও অন্যান্য প্রাণীর আক্রমণের শিকার হয়ে থাকেন। এতে বছরে সহস্রাধিক মানুষ জলাতঙ্ক রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায় এবং এর পাশাপাশি অনেক গবাদিপশুও এ রোগে মারা যায়। যার অর্থনৈতিক মূল্য অপরিসীম।

আর ১৫ বছরের মনুষ কুকুরে কামড়ের শিকার বেশি হন বলে জানান চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা। সারা বিশ্বে প্রতিবছর ৫৫ হাজার মানুষ জলাতঙ্ক রোগে মারা যায়।  আর বাংলাদেশে প্রতিবছর মারা যায় দুই হাজারেরও বেশি মানুষ। সরকারি তথ্য মতে, প্রতি বছর দেশে তিন থেকে চার লাখ মানুষ কুকুরের কামড়ের শিকার হন।

জানা গেছে, ২০২২ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে জলাতঙ্কমুক্ত করতে ২০১০ সাল থেকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সংক্রামক ব্যাধি শাখার (সিডিসি) উদ্যোগে প্রাণী সম্পদ মন্ত্রণালয় এবং স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় জাতীয় জলাতঙ্ক নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি চলমান রয়েছে। যা ২০১৭ সালে জাতীয় জলাতঙ্ক নির্মূল কর্মসূচিতে উন্নীত করা হয়।