বর্ষায় শিশুর ত্বক

0
206
views

স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়ায় জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বেশি বলে এই সময় প্রকৃতিতে ছত্রাকসহ নানা জীবাণুর বংশবৃদ্ধি ঘটে বেশি। বর্ষাকালে তাই শিশুদের দিকে একটু বিশেষ নজর দেওয়া চাই।
বৃষ্টির পানিতে ভিজলে অবশ্যই বাড়ি ফিরে ভালো করে সাবান দিয়ে গোসল করাতে হবে।
baby-skin-careপা নোংরা পানির সংস্পর্শে আসে বেশি, তাই বাড়ি ফিরে পা ধোয়া ও তারপর তা ভালো করে মুছে ফেলার অভ্যাস গড়ে তুলুন। স্কুলের থাকার সময় ঘামে ভেজা জামাকাপড় রোজ ধুয়ে দিলে ভালো। গেঞ্জি, মোজা ও অন্তর্বাস ধুয়ে দিতে হবে। রোদের অভাবে মোজা ভালো করে শুকায় না। এ ক্ষেত্রে আধভেজা মোজা পরানো যাবে না কিছুতেই। কারণ, পায়ের ত্বকে ও আঙুলের ফাঁকে ছত্রাক সংক্রমণ হয়। তাই কয়েক জোড়া মোজা রাখুন। এ ছাড়া বগলে, কুঁচকি ও চুলের ফাঁকে স্যাঁতসেঁতে ভেজা থাকে। এই জায়গাগুলো রোজ পরিষ্কার করুন ও শুকনো রাখুন।
বর্ষাকালে ছোট শিশুদের ডায়াপার র্যা শ হয় বেশি। ডায়াপার বারবার পরীক্ষা করে দেখুন ভিজে গেছে কি না এবং ভিজলেই পাল্টে ফেলুন। ডায়াপার ব্যবহারের আগে ত্বকে ভ্যাসলিন বা জিংক ব্যবহার করা ভালো।
এ ছাড়া এই সময় স্ক্যাবিস বা খোসপাঁচড়া হয়ে থাকে। এটাও একধরনের পরজীবীর আক্রমণে হয়ে থাকে এবং একজন থেকে অন্যজনে ছড়ায়। স্ক্যাবিস হলে বাড়ির সবার একসঙ্গে চিকিৎসা করতে হবে। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে শৈশব থেকেই সন্তানকে যথাযথ শিক্ষা দিন।