বিএসএমএমইউয়ের ফার্মেসি নীতিমালা নিরাপদ ওষুধ সরবরাহে

0
239

চিকিৎসাধীন রোগীদের অপেক্ষাকৃত কম দামে মানসম্মত ও নিরাপদ ওষুধ সরবরাহ নিশ্চিত করতে ওষুধ ফার্মেসি পরিচালনা নীতিমালা প্রণয়ন করেছে দেশের একমাত্র মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ)। সম্প্রতি সিন্ডিকেটের সভায় সর্ব সম্মতিক্রমে এ নীতিমালা পাশ করা হয়েছে।

বিএসএমএমইউ হাসপাতালে প্রতিদিন রোগীর ভিড় বেড়েই চলেছে। হাসপাতালের বহির্বিভাগে আগে প্রতিদিন গড়ে চার থেকে পাঁচ হাজার রোগী আসলেও বর্তমানে তা সাত থেকে আট হাজারে পৌঁছেছে। এ ছাড়া ১ হাজার ৫শ’ শয্যার হাসপাতালের ইনডোরেও রোগী ভর্তির চাহিদা বেড়েই চলেছে। ফলে বিপুল সংখ্যক মানুষকে নিরাপদ ও মানসম্মত ওষুধ সরবরাহ করা জরুরি হয়ে পড়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওষুধ ফার্মেসি পরিচালনা নীতিমালা প্রণয়নের পর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ক্যাম্পাসে একাধিক নতুন ওষুধের ফার্মেসি চালুর উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। এসব ফার্মেসি চালু হলে রোগীরা অপেক্ষাকৃত কম মূল্যে নিরাপদ ও মান সম্মত ওষুধ কিনতে পারবেন।

ফার্মেসি পরিচালনা নীতিমালা পাশ ও নুতন ফার্মেসি খোলার উদ্যোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিএসএমএমইউ ভিসি অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান বলেন, বিএসএমএমইউ বিশেষায়িত চিকিৎসাসেবার প্রতি মানুষের আস্থা ক্রমশ বাড়ছে। ফলে বহির্বিভাগ ও আন্তঃবিভাগে রোগীর ভিড় বাড়ছে। বিপুল সংখ্যক রোগীর চিকিৎসায় চিকিৎসকরা ওষুধ লিখছেন। বিভিন্ন ধরনের রোগের চিকিৎসায় যে সকল ওষুধ লেখা হচ্ছে সেগুলোর মান ও দাম নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা গ্রহণ করতে আসা বিশেষ করে ইনডোরে চিকিৎসাধীন রোগীদের অপেক্ষাকৃত কম দামে নিরাপদ ও মানসম্মত ওষুধ সরবরাহ করতে প্রতিটি ভবনে এক বা একাধিক ফার্মেসি খোলার চিন্তা ভাবনা চলছে। ফার্মেসিগুলো চালু হলে ওষুধের জন্য রোগী ও তাদের স্বজনকে আর দৌড়ঝাঁপ করতে হবে না।