ভালোবাসার গড়ে মানুষের শারীরিক ওজন ১৭ পাউন্ড বেড়ে যায়

0
38
views

একটি নতুন গবেষণায় দেখা গেছে, ভালোবাসার সম্পর্কে জড়ানোর এক বছরের মধ্যে গড়ে মানুষের শারীরিক ওজন ১৭ পাউন্ড বেড়ে যায়।

ফক্স নিউজের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জেনি ক্রেগ ডটকমের পক্ষে মার্কেট রিসার্চ ফার্ম ওয়ানপোল ২,০০০ আমেরিকানের ওপর একটি গবেষণা পরিচালনা করে। এই গবেষণায় আবিষ্কার হয়েছে যে, ভালোবাসার সম্পর্কে জড়ানো মানুষদের তৃতীয়-চতুর্থাংশের ওজন বৃদ্ধি পেয়েছিল। গড় ব্যক্তির ওজন সম্পর্কে জড়ানোর পর ৩৬ পাউন্ড বেড়ে যায় এবং ডেটিংয়ের প্রথম বছরের মধ্যে ১৭ পাউন্ড ওজন বাড়ে।

এই অতিরিক্ত ওজন বাড়ার সবচেয়ে বড় কারণ কি? গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের ৬৪ শতাংশই বলেছে, সম্পর্কে জড়ানোর পর থেকে তারা প্রিয় মানুষটিকে আকর্ষণ করার জন্য নিজেদেরকে সর্বোত্তমভাবে উপস্থাপন করার অতিরিক্ত চাপ অনুভব করেননি, এটিই হলো তাদের ওজন বেড়ে যাওয়ার সবচেয়ে বড় কারণ। এই জরিপের ৪১ শতাংশের মতে, ভালোবাসার মানুষকে খুঁজে পাওয়ার পর ঘনঘন খাবার খাওয়া হচ্ছে ওজন বৃদ্ধির জন্য অন্যতম কারণ। ৩৪ শতাংশের মতে, সম্পর্কে জড়ানোর পর বাইরে খাওয়া-দাওয়া ও ড্রিংকিং ওজন বেড়ে যাওয়ার কারণ হতে পারে।

ডেটিং যে ডায়েটিংকে লাইনচ্যুত করে তার জন্য এটিই প্রথম গবেষণা নয়। এ বছরের শুরুর দিকে ইউনিভার্সিটি অব কুইন্সল্যান্ডের গবেষকরা জানিয়েছেন, সিঙ্গেলদের তুলনায় কাপলদের বিএমআই বেশি ছিল, এমনকি স্বাস্থ্যকর ভোজন ও অধিক সক্রিয় থাকার পরও, ম্যানস হেলথ ডটকমের প্রতিবেদন অনুসারে। ভালোবাসার সম্পর্কে জড়ানো লোকেরা সাধারণত একসঙ্গে খাবার খাওয়া, টিভি দেখার জন্য বেশি সময় ব্যয় করেন। এমনকি কিছু কাপল স্বাস্থ্যকর খাবার খেলেও তাদের ওজন তুলনামূলক বেড়ে যায়।

অবশ্য সম্পর্কে জড়ানো আপনার স্বাস্থ্যসম্মত অভ্যাসগুলোকে বিতাড়িত করবে না, যদি আপনি সচেতন থাকেন। ফাস্টফুড খাওয়ার পরিবর্তে সঙ্গীকে নিয়ে একসঙ্গে জিমে ব্যায়াম করতে পারেন। স্যান্টা ক্লারা ইউনিভার্সিটির গবেষকরা জানিয়েছেন, সঙ্গীর সঙ্গে ব্যায়াম লোকজনকে একা একা ব্যায়াম করার তুলনায় অধিক শক্তিশালী ও সুখী অনুভবে সাহায্য করে।