ইউনিসেফের প্রতিবেদন পৃথিবীতে দৈনিক ১৫ হাজার শিশুর মৃত্যু — ভালো থাকুন

ইউনিসেফের প্রতিবেদন পৃথিবীতে দৈনিক ১৫ হাজার শিশুর মৃত্যু

পৃথিবীতে দৈনিক ১৫ হাজার শিশুর মৃত্যু হচ্ছে- যাদের বয়স পাঁচ বছরের নিচে। ২০১৬ সালের হিসাবে পাঁচ বছরের নিচে এই শিশুদের ৪৬ ভাগ তাদের জন্মের এক মাসের মধ্যে মারা গেছে। ইউনিসেফ প্রকাশিত শিশু মৃত্যুর প্রবণতা ও হার নিয়ে সম্প্রতি প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। এতে উল্লেখ করা হয়েছে, শিশু মৃত্যুর হার না কমলে ২০১৭ থেকে ২০৩০ সাল পর্যন্ত সময়কালে জন্ম গ্রহণের এক মাসের মধ্যে মারা যাবে ৩ কোটি নবজাতক।

‘লেভেল এন্ড ট্রেন্ড ইন চাইল্ড মর্টালিটি’ শীর্ষক এই প্রতিবেদন অনুযায়ী বিশ্বব্যাপী শিশু মৃত্যুর হার কমে এসেছে। ২০১৬ সালে পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশু মৃত্যু হার কমে ৫৬ লাখে নেমে এসেছে। ২০০০ সালেও এই সংখ্যা ৯৯ লাখ ছিল। তবে নবজাতকের শিশু মৃত্যু হার বেড়েছে। এ সময়ে ৪১ ভাগ থেকে ৪৬ ভাগে উঠে এসেছে নবজাতক মৃত্যুর হার। সে হিসাবে ২০০০ সালের পর ৫ কোটি শিশুর জীবন রক্ষা পেয়েছে। ইউনিসেফের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান স্টিফেন সোয়ার্টলিং উল্লেখ করেছেন, শিশু মৃত্যুহার রক্ষায় সরকারি প্রতিশ্রুতি, উন্নয়ন সহযোগীদের সহায়তা এই অগ্রগতির ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে। কিন্তু নবজাতকের মৃত্যু হার বন্ধ করতে না পারলে এই অর্জন পরিপূর্ণ হতে পারবে না। শিশু মৃত্যুহারের যে প্রবণতা তাতে ২০৩০ সাল পর্যন্ত ৬ কোটি শিশু তাদের পঞ্চম জন্ম দিবস পেরুতে পারবে না।

ইউনিসেফ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং বিশ্বব্যাংক এই প্রতিবেদন তৈরিতে সহায়তা করেছে। প্রতিবেদন অনুুযায়ী, বাংলাদেশের শিশু মৃত্যুর হার প্রতিবেশী অন্যান্য দেশের তুলনায় উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে। ১৯৯০ সালে বাংলাদেশে ৫ বছরের নিচে শিশু মৃত্যুর সংখ্যা প্রতি হাজারে ১৪৪ থেকে ২০১৬ সালে ৩৪ এ নেমে এসেছে। ভারতে এই হার ১২৬ থেকে ৪৩ এ নেমেছে। পাকিস্তানে ১৩৪ থেকে ৭৯ এ নেমে এসেছে। নেপালে ১৪৪ থেকে ৪৫ এ নেমে এসেছে। অন্যদিকে, শ্রীলঙ্কার ২১ থেকে ৯ এ নেমে এসেছে।

নবজাতক মৃত্যুর বড় অঞ্চল হলো দক্ষিণ এশিয়ার (৩৯ ভাগ) এবং সাব সাহারান আফ্রিকা (৩৮ ভাগ)। বিশ্বে যত নবজাতক মৃত্যুবরণ করে তার অর্ধেক মাত্র পাঁচটি দেশকে ঘিরে। এগুলো হলো ভারত (২৪%), পাকিস্তান (১০%), নাইজেরিয়া (৯%), কঙ্গো (৪%) এবং ইথিওপিয়া (৩%)।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সহকারী মহাপরিচালক ফ্লেভিয়া বাস্তিরো উল্লেখ করেছেন, নবজাতক মৃত্যুর হার কমাতে পরিবারগুলোর স্বাস্থ্য সুরক্ষা প্রয়োজন। এজন্য তাদের অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নতি করাও প্রয়োজন। নবজাতকের সময় মতো দেখাশুনা করতে হয়। এজন্য সময় উপযোগী সেবা দেওয়াও প্রয়োজন।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, বিশ্বে অসমতা কমানো সম্ভব হলে নবজাতক মৃত্যুর হারও কমে আসবে। যদি বিশ্বের সব দেশ উন্নত বিশ্বের মতো শিশু মৃত্যু হার হতো সেক্ষেত্রে শুধু ২০১৬ সালেই ৫০ লাখ জীবন রক্ষা পেতো। সব মিলিয়ে শিশু মৃত্যু হার ৮৭ ভাগ কমানো সম্ভব হতো। প্রতিবেদনে ৫ থেকে ১৪ বছর পর্যন্ত শিশুদের মৃত্যুহারও হিসাব করা হয়েছে। এতে দেখা যায় দুর্ঘটনা এবং আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে ২০১৬ সালে প্রায় ১০ লাখ শিশু মৃত্যুবরণ করেছে।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, আফ্রিকায় প্রতি ৩৩টি শিশুর মধ্যে একটি শিশু জন্মের প্রথম মাসেই মারা যায়, উন্নত বিশ্বে ৩৩৩টি শিশুর মধ্যে মাত্র একটি শিশু জন্মের প্রথম মাসে মারা যাচ্ছে। প্রতিবেদনে আশঙ্কা করা হয়েছে, শিশু মৃত্যু এই হার কমাতে না পারলে ২০৩০ সালের মধ্যে বিশ্বে ৬০টি দেশ জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট (এসডিজি) লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করতে ব্যর্থ হবে।

ROOT

করোনার ৩ নতুন উপসর্গ হচ্ছে সর্দি, বমিভাব আর ডায়রিয়া

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থা (সিডিসি) করোনাভা্রাসের নতুন তিনটি উপসর্গ চিহিৃত করেছে। নতুন ৩ উপসর্গ হচ্ছে সর্দি, বমিভাব আর ...
Read More

করোনায় শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আসাদুজ্জামানের মৃত্যু

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মহাখালীর জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আসাদুজ্জামান মারা গেছেন। ...
Read More

করোনা উপসর্গ নিয়ে যুবকের মৃত্যু

গাজীপুরের শ্রীপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে ফিরোজ আল-মামুন (৪০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। ফিরোজ উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের মাওনা গ্রামের মৃত ...
Read More

অতিরিক্ত অর্থে মিলছে অক্সিজেন

রাজশাহীতে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। আর এর চাইতেও বেশি আছে করোনা উপসর্গ নিয়ে নতুন রোগীর সংখ্যা। এ ধরনের ...
Read More

উপসর্গে ওসমানী মেডিকেলের অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকরের মৃত্যু

সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকর দে করোনাভাইরাসের ...
Read More

চীনের ভ্যাকসিনের ট্রায়াল হতে পারে বাংলাদেশে

করোনাভাইরাস নির্মূলে চীন আবিষ্কৃত সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বাংলাদেশে হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। ...
Read More

ক‌রোনায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের উপদেষ্টার মৃত্যু

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের চেঞ্জ ম্যানেজমেন্ট উপদেষ্টা আল্লাহ মালিক কাজেমী মারা গেছেন। শুক্রবার (২৬ জুন) বিকেলে এভার কেয়ার ...
Read More

রাজশাহীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে দু’জনের মৃত্যু,

প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীতে মারা গেছেন একজন। আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে করোনার উপসর্গ নিয়ে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল ...
Read More

করোনায় মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যানের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বেসরকারি মার্কেন্টাইল ব্যাংকের উদ্যোক্তা পরিচালক ও ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সেলিম (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি ...
Read More
%d bloggers like this: