করোনায় আক্রান্ত নরসিংদীতে একজনের মৃত্যু

নরসিংদীতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাজি শরীফ হোসেন মুক্তা (৫৭) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১৮ মে) বিকেলে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত শরীফ হোসেন মুক্তা সদর উপজেলার মাধবদী নুরালাপুর গ্রামের বাসিন্দা।

এর আগে দুপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে সাদিয়া আক্তার শাহেলা (৪৩) নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুরে সদর উপজেলার মহিষাসুরা গ্রামে এঘটনা ঘটে। নিহত সাদিয়া আক্তার শাহেলা মহিষাসুরা ইউপি চেয়ারম্যান ডা: এনামুল হক শামীমের সহধর্মীনি।

করোনা প্রতিরোধ সেলের কুইক রেসপন্স টিমের আহবায়ক ও সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ শাহ আলম মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
করোনা প্রতিরোধ সেলের কুইক রেসপন্স টিমের আহবায়ক জানিয়েছেন, ওই নারী ৫/৬ দিন ধরে জ্বর, ঠান্ডা-কাশিতে ভুগছিলেন। করোনার এসব উপসর্গ দেখা দিলেও সাধারণ জ্বর মনে করে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান। সোমবার দুপুরে তার শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। পরে তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে রাতেই করোনা প্রতিরোধ সেলের কুইক রেসপন্স টিম মরদেহ উদ্ধার করে।

করোনা প্রতিরোধ সেলের কুইক রেসপন্স টিমের আহবায়ক ও সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ শাহ আলম মিয়া জানান, শরীফ হোসেন মুক্তার করোনা পজেটিভ ছিল। সোমবার বিকেলে ঢাকার একটি হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। এর আগে মহিষাসুরা ইউপি চেয়ারম্যানের স্ত্রীর করোনা উপসর্গ দেখা দিলেও তিনি তা গোপন করেন। পরে সোমবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়। পরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে রাতে জানাজা শেষে তার মরদেহ দাফন করা হয়। এর আগে পৌর শহরের বৌয়াকুর এলাকায় এক মাছ ব্যাবসায়ীর মৃত্যু হয়। ভয়ে কেউ লাশ দাফন করতে যায়নি। পরে কুইক রেসপন্স টিমের লোকজন নিয়ে আমি নিজে গিয়ে তার মরদেহ সৎকার করা হয়।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বশেষ তথ্যমতে, নরসিংদী জেলায় এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত ৩০৬ জন সনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ১৬৪ জন। আর মারা গেছেন ৪ জন।

ROOT

Leave a Reply

%d bloggers like this: