জনপ্রিয় অভিনেত্রী ভারতীয় বাংলা চলচ্চিত্রের সুপ্রিয় দেবী মারা গেছেন — ভালো থাকুন

জনপ্রিয় অভিনেত্রী ভারতীয় বাংলা চলচ্চিত্রের সুপ্রিয় দেবী মারা গেছেন

শুক্রবার ভোরে কলকাতার বালিগঞ্জের সার্কুলার রোডে নিজের বাড়িতে হৃদরোগে তিনি মারা যান। দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন ৮৩ বছরের এই অভিনেত্রী।

সুপ্রিয়ার প্রথম ছবি ‘বসু পরিবার’।  ঋত্বিক ঘটক পরিচালিত ‘মেঘে ঢাকা তারা’ (১৯৬০)  ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি। এছাড়া, ‘কোমল গান্ধার’ (১৯৬৪), ‘লাল পাথর’,‘ চৌরঙ্গী’ (১৯৬৮) তার সাড়া জাগানো ছবিগুলোর অন্যতম।

১৯৩৫ সালের ৮ জানুয়ারি জন্ম হয় সুপ্রিয়া দেবীর। মাত্র ৭ বছর বয়সে অভিনয় শুরু করেন। দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে ভারতীয় বাংলা সিনেমায় দাপটের সঙ্গে অভিনয় করেছেন।

ঋত্বিক ঘটকের ‘মেঘে ঢাকা তারা’র নীতা কিংবা ‘দেবদাস’–এর চন্দ্রমুখী, বা ‘দুই পুরুষ’-এর বিমলা কিংবা ‘বন পলাশীর পদাবলী’র পদ্মা, প্রত্যেকটি সিনেমায় তার উপস্থিতি  উজ্জ্বল হয়ে রয়েছে বাঙালি দর্শকের কাছে।

উত্তম কুমার থেকে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়সহ  বাংলার বিশিষ্ট অভিনেতাদের সঙ্গে দাপটের সঙ্গে অভিনয় করেছেন তিনি।

মহানায়ক প্রয়াত উত্তম কুমার-সুপ্রিয়া জুটি এক সময় দারুণ জনপ্রিয় ছিল।

উত্তম কুমারের সঙ্গে তিনি ‘সোনার হরিণ’, ‘শুন বরনারী’, ‘উত্তরায়ন’, ‘সূর্য্যশিখা’,‘ সবরমতী’, ‘মন নিয়ে’ সহ আরও বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

সুপ্রিয়া দেবীর প্রয়াণে বাংলার স্বর্ণযুগের আর এক অধ্যায় শেষ হয়ে গেল।

বর্ষীয়ান এই অভিনেত্রীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করে টুইটারে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মততা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “বাংলার কিংবদন্তি অভিনেত্রী সুপ্রিয়া চৌধুরির (দেবী) মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছি। তার চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আমরা তাকে ভালোবাসার সহিত স্মরণ করবো। তার পরিবার ও বন্ধুদের জন্য সমবেদনা।

লক্ষণ জানুন, হৃদরোগ থেকে বাঁচুন

১. হার্ট অ্যাটাকের সবচেয়ে কমন একটি লক্ষণ হল বাম বুকের মাঝবরাবর তীব্র ব্যাথা অনুভুত হওয়া। এই ব্যাথা শরীরের পুরো বাম পাশকেই অবশ করে ফেলতে পারে। বিশেষকরে বাম বাহু ও পিঠ এবং দুই সিনার মাঝখানটাকেও আক্রান্ত করতে পারে। এছাড়াও এই ব্যথা চিবুক পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ে চোয়ালকেও আক্রান্ত করতে পারে।

২. হার্ট অ্যাটাকের পরপরই শরীর থেকে প্রচুর ঘাম বের হতে থাকবে। সংবেদনশীল স্নায়ুতন্ত্র অতিরিক্ত ক্রিয়াশীল হয়ে পড়ায় এসময় শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণে ঘাম ঝরে। এছাড়া বুকে ব্যথা শুরু হওয়ার পরপরই শরীর থেকে বেশ কয়েকটি হরমোন নি:সরিত হয় যা রক্তচাপ ও হার্ট বিট বাড়িয়ে দেয়। এ কারণেও শরীর থেকে প্রচুর ঘাম বের হয়।

৩. আর ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে বুকে তীব্র ব্যথা অনুভুত হওয়ার চেয়েও শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণে ঘাম ঝরা, মাথা ঘোরা ও ক্ষণিকের জন্য চেতনাহীন হয়ে পড়াটাই হার্ট অ্যাটাকের সবচেয়ে কমন পূর্বলক্ষণ।

৪. শ্বাসকষ্ট, মাথা ঝিমানো ও জ্ঞান হারানো হার্ট অ্যাটাকের আরও কয়েকটি পূর্বলক্ষণ। করোনারি শিরা-উপশিরায় ব্লক পড়ার ফলে হৃদপিন্ডের মাংসপেশিতে অক্সিজেনযুক্ত রক্ত সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এ লক্ষণগুলো দেখা দেয়।

৫. তলপেটের উপরিভাগে অস্বস্তি এবং হৃদপিন্ডে জালাপোড়াও হৃদরোগের পূর্বলক্ষণ। এই লক্ষণগুলোকে অনেকসময় এসিডিটি ও হৃদপিন্ডের সাধারণ প্রদাহ গণ্য করে ভুল করা হয়।

৬. তীব্র বমির অনুভুতিও হার্ট অ্যাটাকের একটি ছদ্মবেশী পূর্বলক্ষণ। তবে এটাকেও অনেকসময় ভুলবশত গ্যাস্ট্রিক ও বদহজমের কারণে সৃষ্ট সমস্যা হিসেবে গণ্য করা হয়।

৭. হার্ট অ্যাটাকের আরও কয়েকটি পূর্ব লক্ষণ হল- অকারণ অবসাদগ্রস্ততা, বিবর্ণতা, ধড়ফড়ানি ও উদ্বিগ্নতা।

হার্ট অ্যাটাক হলে তাৎক্ষণিকভাবে করনীয়গুলো কী?

১. কারও হার্ট অ্যাটাক হলে প্রথমেই জরুরি ভিত্তিতে ডাক্তার ডেকে আনতে হবে। কারণ অভিজ্ঞ ডাক্তার ছাড়াই কোনও ট্রিটমেন্ট করতে গেলে অনেকসময় রোগীর অবস্থা আরও খারাপ হয়ে পড়তে পারে।

২. হার্ট অ্যাটাকের পরপরই রোগীকে শক্ত জায়গায় হাত-পা ছড়িয়ে শুইয়ে দিন এবং গায়ের জামা-কাপড় ঢিলেঢালা করে দিন। আর সম্ভব হলে জামা-কাপড় খুলে ফেলুন।

৩. বাতাস চলাচলের রাস্তাগুলো সব উম্মুক্ত করে দিন। এরপর রোগীকে গভীরভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে সহায়তা করুন।

৪. হার্ট অ্যাটাকের পর হাতের কব্জিতে পালস টেস্ট না করে বরং ঘাড়ের কোনও একপাশে পালস টেস্ট করুন। কারণ নিম্ন রক্তচাপের কারণে হার্ট অ্যাটাকের পর হাতের কব্জিতে পালস নাও ধরা পড়তে পারে।

৫. হার্ট অ্যাটাকের পর যদি রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাস বন্ধ হয়ে যায় তাহলে তাকে কৃত্রিম উপায়ে অক্সিজেন সরবরাহের চেষ্টা করুন।

৬. হার্ট অ্যাটাকের পর রোগীর যদি বমি আসে তাহলে তাকে একদিকে কাত করে দিন। যাতে সে সহজেই বমি করতে পারে। এতে ফুসফুসের মতো অঙ্গে বমি ঢুকে পড়া থেকে রক্ষা পাবেন রোগী।

৭. হৃদপিন্ডে রক্তের সরবরাহ বাড়াতে হার্ট অ্যাটাকে আক্রান্ত ব্যক্তির দুটো পা-ই উপরের দিকে তুলে ধরুন।

৮. হার্ট অ্যাটাকের পর হৃদপিন্ডে রক্তের সরবরাহ বাড়ানোর জন্য বাজারে প্রচলিত ওষুধও রোগীকে তাৎক্ষণিকভাবে খাইয়ে দিতে পারেন।

৯. হার্ট অ্যাটাকে রোগী যদি অচেতন হয়ে পড়েন তাহলে সিপিআর থেরাপি প্রয়োগ করুন। সম্প্রতি আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন হ্যান্ডস অনলি সিপিআর নামে এই থেরাপির একটি সরলীকৃত ভার্সন ভিডিও আকারে বাজারে ছেড়েছে।

ROOT

করোনার ৩ নতুন উপসর্গ হচ্ছে সর্দি, বমিভাব আর ডায়রিয়া

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থা (সিডিসি) করোনাভা্রাসের নতুন তিনটি উপসর্গ চিহিৃত করেছে। নতুন ৩ উপসর্গ হচ্ছে সর্দি, বমিভাব আর ...
Read More

করোনায় শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আসাদুজ্জামানের মৃত্যু

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মহাখালীর জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আসাদুজ্জামান মারা গেছেন। ...
Read More

করোনা উপসর্গ নিয়ে যুবকের মৃত্যু

গাজীপুরের শ্রীপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে ফিরোজ আল-মামুন (৪০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। ফিরোজ উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের মাওনা গ্রামের মৃত ...
Read More

অতিরিক্ত অর্থে মিলছে অক্সিজেন

রাজশাহীতে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। আর এর চাইতেও বেশি আছে করোনা উপসর্গ নিয়ে নতুন রোগীর সংখ্যা। এ ধরনের ...
Read More

উপসর্গে ওসমানী মেডিকেলের অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকরের মৃত্যু

সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকর দে করোনাভাইরাসের ...
Read More

চীনের ভ্যাকসিনের ট্রায়াল হতে পারে বাংলাদেশে

করোনাভাইরাস নির্মূলে চীন আবিষ্কৃত সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বাংলাদেশে হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। ...
Read More

ক‌রোনায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের উপদেষ্টার মৃত্যু

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের চেঞ্জ ম্যানেজমেন্ট উপদেষ্টা আল্লাহ মালিক কাজেমী মারা গেছেন। শুক্রবার (২৬ জুন) বিকেলে এভার কেয়ার ...
Read More

রাজশাহীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে দু’জনের মৃত্যু,

প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীতে মারা গেছেন একজন। আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে করোনার উপসর্গ নিয়ে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল ...
Read More

করোনায় মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যানের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বেসরকারি মার্কেন্টাইল ব্যাংকের উদ্যোক্তা পরিচালক ও ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সেলিম (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি ...
Read More
%d bloggers like this: