গরমে তৃষ্ণা মেটাতে বিশুদ্ধ পানীয়র পাশাপাশি কোমল পানীয়র জুড়ি নেই। আমরা অনেকেই এই কোমল পানীয় হিসেবে ডায়েট বা চিনিযুক্ত কোমল পানীয় পান করে থাকি। তবে গবেষণায় পাওয়া গেছে, যারা প্রতিদিন তিন বেলা ডায়েট কোমল পানীয় পান করেন, তাদের স্ট্রোক ও দ্রুত স্মৃতিশক্তি লোপ পাওয়ার হার অন্যদের তুলনায় বেশি।

ডায়েট কোমল পানীয়তে থাকে সেকারিন, সুক্রোজ, এসপারটাম জাতীয় আর্টিফিশিয়াল মিষ্টি উপাদান। এই সকল উপাদান মস্তিষ্কের বয়স বাড়িয়ে দেয় এবং মস্তিষ্কের ধারণ ক্ষমতা হ্রাস করে। এতে ধীরে ধীরে মস্তিষ্কের স্মৃতিশক্তি লোপ পায়, একে মেডিক্যালের ভাষায় ডিমেনশিয়া বলে। এছাড়া মিষ্টি দেয়া যে কোন কোমল পানীয় ওজন বৃদ্ধি, ডায়াবেটিস, স্ট্রোক এবং আরো অনেক জটিল রোগের অন্যতম কারণ হিসেবে চিহ্নিত।
গবেষণায় দেখা গেছে, ওজন নিয়ন্ত্রণের জন্য পুরুষদের চেয়ে মহিলারা বেশি ডায়েট কোমল পানীয় পছন্দ করেন। ফলে স্ট্রোক, হার্ট এ্যাটাক ও অন্যান্য হার্টের সমস্যায় মৃত্যুর হার মহিলাদের বেশি।
তাই এই গরমে কোমল পানীয় পরিবর্তে দেশি ফলের শরবত, ডাবের পানি, লেবুর শরবত পান করা নিরাপদ, স্বাস্থ্যকর ও আরামদায়ক।