বার্ড ফ্লু’, আক্রান্ত কয়েক হাজার মুরগী

9

বার্ড ফ্লু। দক্ষিণ-পশ্চিম চিনের সিচুয়ান প্রদেশে সন্ধান মিলেছে এই নতুন আতঙ্কের।
জানা গিয়েছে ইতিমধ্যেই বহু মুরগি বার্ড ফ্লু-তে আক্রান্ত হয়েছে। ২৪৯৭টি মুরগী আক্রান্ত হয়েছে। তার মধ্যে ১৮৪০ টি মুরগীর মৃত্যুও হয়েছে। প্রশাসনের তরফ থেকেই এই হিসেব দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় প্রশাসন ওই জায়গা ঘিরে দিয়েছে। এর আগে চিনের হুনান প্রদেশে পাঁচটি মুরগী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়।

এদিকে, মৃতের সংখ্যা বাড়তে বাড়তে ৯০০ ছাড়িয়েছে। রবিবার এক দিনে ৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। প্রতিদিনই শতাধিক মানুষের মৃত্যু সংবাদ পাচ্ছে দুনিয়া।

চিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানাচ্ছে, মৃতের সংখ্যা যেমন উদ্বিগ্ন করছে তেমনই রয়েছে আশার খবর। ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রামিত ২ হাজার ৬৫১ জন সুস্থ হয়েছেন। তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে হাসপাতাল থেকে। ভারতে যে একজনের করোনা ভাইরাস ধরা পড়েছিল, তিনি ক্রমশ সুস্থ হয়ে উঠছে বলে সোমবার একটি রিপোর্টে জানা গিয়েছে।

চিনের উহান শহর হল করোনা ভাইরাসের কেন্দ্র। এই শহর থেকে ভাইরাস পুরো চিন জুড়ে ছড়িয়েছে। পরিস্থিতি এমন যে চিনের সঙ্গে স্থল সীমান্ত থাকা ১৪টি দেশে এই ভাইরাস প্রবলভাবে ছড়ানোর সম্ভাবনা। প্রায় সবকটি দেশই চিনের সঙ্গে সাময়িক যোগাযোগ স্থগিত করেছে।

একমাত্র চিনের প্রতিবেশী ভুটানের সঙ্গে কোনও সরাসরি যোগাযোগ নেই কূটনৈতিক কারণে। আর উত্তর কোরিয়া সরকার তার অবস্থান জানায়নি। এই নিয়ে চলছে প্রবল চর্চা। কারণ, উত্তর কোরিয়ার বাণিজ্যিক লেনদেন ও যাতায়াতের ৯০ শতাংশই হয় চিনের সঙ্গে।

চিন সীমান্তের সর্ববৃহৎ দেশ ভারতেও করোনা ভাইরাস ছড়ানোর সম্ভাবনা প্রবল। যদিও ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে এই ভাইরাস এখনও বড় আকার নেয়নি। যে কয়েকজন ভারাস আক্রান্ত বলে চিহ্নিত ও চিকিৎসারত তাদের অবস্থা স্থিতিশীল। চিন সীমান্তের সবকটি রাজ্যকে বিশেষ সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে।