বিশ্ব কুষ্ঠ দিবস পালিত — ভালো থাকুন

বিশ্ব কুষ্ঠ দিবস পালিত

কুষ্ঠ (Leprosy) মানবসভ্যতার একটি প্রাচীনতম রোগ।প্রায় ৪ হাযার বছরের ইতিহাস রয়েছে এ রোগের। মিসর, চীন ও ভারতীয় প্রাচীন ইতিহাসে এ রোগের উল্লেখ রয়েছে।প্রতি বছর জানুয়ারী মাসের শেষ রবিবার ‘বিশ্ব কুষ্ঠ দিবস’ পালন করা হয়ে থাকে।সাধারন জনগণকে এ রগ সম্বন্ধে সচেতন এবং কুষ্ঠ নিরাময় ও প্রতিরোধে সম্পৃক্ত করার জন্যই দিবসটি পালন করা হয়ে থাকে।অদ্যাবধি কুষ্ঠ পৃথিবীব্যাপী জনসাস্থের জন্য হুমকি হিসেবে বিরাজ করছে । এটি নির্মূল ও প্রতিরোধের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং আক্রান্ত দেশসমুহ একযোগে কাজ করছে ।পৃথিবী ব্যাপী প্রায় ০.৩ মিলিয়ন এ রোগে আক্ত্রান্ত এবং প্রতিনিয়ত কেউ  নুতন আক্রান্ত হচ্ছে।ভয়, কুসংস্কার এবং লজ্জার কারণে আক্রান্তরা এটিকে প্রকাশ করতে চান না বা চিকিৎসা গ্রহণে কুণ্ঠাবোধ করে থাকেন। বলা হয়ে থাকে ‘সমাজ কুষ্ঠরোগীকে ভয় পায় আবার কুষ্ঠ আক্রান্তরা সমাজকে ভয় পায়।

অত্যধিক জনসংখ্যা এবং অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ রোগটি ছড়াতে বিশেষ ভূমিকা রাখে। পৃথিবীব্যাপী প্রায় ৮০টি দেশে এ রোগের বিস্তার রয়েছে।ভারত,নেপাল,ব্রাজিল,দখখিন আফ্রিকা,মিসর,সমালিয়া,মজাম্মবিক,লাইবেরিয়া ইত্যাদি দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেশি ।বাংলাদেশে প্রতি দশ হাজার জনে ০.৬ জন এ রোগে আক্ত্রান্ত এবং প্রতি বছর প্রায় পাঁচ হাজার নতুন রোগী সনাক্ত করা হয়ে থাকে। আমাদের দেশে বৃহত্তর রংপুর, দিনাজপুর, সিলেট, টাঙ্গাইল, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, পার্বত্য চট্টগ্রাম, বগুড়া ও ঢাকা জেলায় এর প্রাদুর্ভাব রয়েছে। উপজেলা ভিত্তিতে প্রায় ১২০টিতে এর বিস্তার রয়েছে। বাংলাদেশ সরকার,বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ও বিভিন্ন এন জি ও সমন্বিত ভাবে কায করে চলেছে রোগটি নিরমুলের জন্য।সব বয়সীরাই এ রগে আক্রান্ত হতে পারে তবে,মেয়েদের চেয়ে ছেলেরা এ রোগে আক্রান্ত হয় বেশি।দি লেপ্রোসী মিশন ইন্টারন্যাশনাল-বাংলাদেশের তথ্যমতে-  দেশে ৩৫ হাজার মানুষ বর্তমানে কুষ্ঠরোগে আক্রান্ত। সরকার দেশে বিনামূল্যে কুষ্ঠ রোগীদের ওষুধ ও চিকিৎসা সেবা দিলেও তারা মানবেতর জীবন-যাপন করছে।
কুসংস্কারই‘কুষ্ঠ’ চিকিৎসা ও প্রতিরোধে মূল প্রতিবন্ধক হিসেবে কাজ করে অথচ সময়মতো ও সঠিক চিকিৎসা গ্রহণ করলে এটি একটি পূর্ণ নিরাময়যোগ্য রোগ। প্রচলিত কুসংস্কারগুলোর একটি হচ্ছে ‘পাপিষ্ঠ ব্যক্তি বা তাদের বংশধরগণ’ এ রোগে আক্রান্ত হয়। বাস্তবে মাইকোব্যাকটেরিয়াম লেপ্রি(mycobacterium leprae)’ নামে একটি জীবাণু এ রোগের জন্য দায়ী।১৮৭৩ সালে নরওয়ের জি আইচ আরমর হেনছেন,এ রোগের জীবাণু আবিস্কার করেন বলে, এটি হেনছেন ডিজিস নামে পরিচিত।

কি কি ধরন 

নানাভাবে এবং অনেকটা  জটিল প্রক্রিয়াতে কুষ্ঠ রোগের শ্রেণীবিন্যাস করা হয়ে থাকে।তবে পাঠকদের বোঝার জন্য,প্রকারগুলো এভাবে বলা যায়,

  • Early and indeterminate leprosy
  • Tuberculoid leprosy
  • Borderline tuberculoid leprosy
  • Borderline leprosy
  • Borderline lepromatous leprosy
  • Lepromatous leprosy
  • Histoid leprosy
  • Diffuse leprosy of Lucio and Latapí

 

লক্ষণ : এ রোগের জীবাণু সাধারণত ত্বক এবং ত্বকের নিকটবর্তী স্নায়ুকলাকে আক্রান্ত করে। আক্রান্ত স্থান অপেক্ষাকৃত বিবর্ণ হয়ে থাকে। ম্যাকুউল, প্যাপিউল, নোডিউল বা প্লেক আকারে দেখা দিতে পারে। স্নায়ু আক্রান্ত হলে স্থানটি অবশ হয়ে থাকে।

কিভাবে ছড়ায় :

  • আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে ত্বক এবং শ্বাসনালীর মাধ্যমে ছড়াতে পারে।
  • আক্রান্ত মায়ের বুকের দুধের মাধ্যমে শিশুর দেহে সংক্রমিত হতে পারে।

জটিলতা : আক্রান্ত স্থানভেদে জটিলতার পার্থক্য আছে। হাত, পা বিকলাঙ্গ হতে পারে। চোখ নাড়ানোর ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দেয়। ত্বক শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে যায়। অনুভূতি কমে যাওয়ার কারণে আগুনে পোড়া বা অন্যান্য দুর্ঘটনার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

 

চিকিৎসা : আমাদের দেশে বিনামূল্যে এ রোগের চিকিৎসার ব্যবস্থা রয়েছে। সময়মতো ওষুধ গ্রহণ করলে কোনো জটিলতা হয় না। তবে জটিলতার কারণে শল্য চিকিৎসা ও ফিজিওথেরাপির প্রয়োজন হতে পারে।

 

প্রতিরোধ : রোগী ও সমাজকে সচেতন করার মাধ্যমে অনেকাংশেই এ রোগ নিয়ন্ত্রণ সম্ভব।

  • অন্যদের সঙ্গে খুব ঘনিষ্ঠভাবে মেলামেশা করবেন না।
  • বিছানা, পরিধেয় এবং প্রসাধনী পৃথক রাখুন।
  • হাঁচি, কাশি দেওয়ার সময় অবশ্যই রুমাল ব্যবহার করবেন।
  • চিকিৎসকের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখুন। পূর্ণ চিকিৎসা গ্রহণ করুন।
  • সতর্কভাবে চলাফেলা করুন। বিশেষ করে আগুন থেকে দূরে থাকুন।

ROOT

করোনার ৩ নতুন উপসর্গ হচ্ছে সর্দি, বমিভাব আর ডায়রিয়া

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থা (সিডিসি) করোনাভা্রাসের নতুন তিনটি উপসর্গ চিহিৃত করেছে। নতুন ৩ উপসর্গ হচ্ছে সর্দি, বমিভাব আর ...
Read More

করোনায় শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আসাদুজ্জামানের মৃত্যু

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মহাখালীর জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আসাদুজ্জামান মারা গেছেন। ...
Read More

করোনা উপসর্গ নিয়ে যুবকের মৃত্যু

গাজীপুরের শ্রীপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে ফিরোজ আল-মামুন (৪০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। ফিরোজ উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের মাওনা গ্রামের মৃত ...
Read More

অতিরিক্ত অর্থে মিলছে অক্সিজেন

রাজশাহীতে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। আর এর চাইতেও বেশি আছে করোনা উপসর্গ নিয়ে নতুন রোগীর সংখ্যা। এ ধরনের ...
Read More

উপসর্গে ওসমানী মেডিকেলের অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকরের মৃত্যু

সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকর দে করোনাভাইরাসের ...
Read More

চীনের ভ্যাকসিনের ট্রায়াল হতে পারে বাংলাদেশে

করোনাভাইরাস নির্মূলে চীন আবিষ্কৃত সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বাংলাদেশে হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। ...
Read More

ক‌রোনায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের উপদেষ্টার মৃত্যু

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের চেঞ্জ ম্যানেজমেন্ট উপদেষ্টা আল্লাহ মালিক কাজেমী মারা গেছেন। শুক্রবার (২৬ জুন) বিকেলে এভার কেয়ার ...
Read More

রাজশাহীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে দু’জনের মৃত্যু,

প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীতে মারা গেছেন একজন। আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে করোনার উপসর্গ নিয়ে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল ...
Read More

করোনায় মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যানের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বেসরকারি মার্কেন্টাইল ব্যাংকের উদ্যোক্তা পরিচালক ও ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সেলিম (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি ...
Read More
%d bloggers like this: