রামেক হাসপাতাল থেকে করোনা উপসর্গ নিয়ে রোগী পালিয়েছে

করোনার উপসর্গ নিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল থেকে পালিয়েছেন এক রোগী। বৃহস্পতিবার হাসপাতালের ১৩ নম্বর ওয়ার্ড (মেডিসিন) থেকে ওই রোগী পালিয়ে যান। নমুনা সংগ্রহে গিয়ে চিকিৎসকরা তাকে খুঁজে পাননি। তিনি করোনা সংক্রমিত কি না তা নিশ্চিত হতে টেস্টের উদ্যোগ নিয়েছিলেন চিকিৎসকরা।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নওশাদ আলী জানান, বগুড়ার দুজন ও রাজশাহীর একজন সন্দেহভাজন রোগীর উপসর্গ টেস্ট করার কথা ছিল। এরইমধ্যে বগুড়ার রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করে করোনা ল্যাবে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু দুপুরের পর রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন থাকা একজন পুরুষ রোগীর নমুনা সংগ্রহের জন্য সংশ্লিষ্টরা যান। কিন্তু তারা ওয়ার্ডে ওই রোগীকে গিয়ে খুঁজে পাননি। এ কারণে তার নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি।
ওই ওয়ার্ডের দায়িত্বে থাকা মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. খলিলুর রহমান এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেছেন, শুনেছি সন্দেহভাজন ওই রোগীকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। রোগীটি নিয়মমতো ছাড়পত্র না নিয়েই পালিয়েছেন।

ROOT

%d bloggers like this: