সর্বোচ্চ খুচরা মূল্যে ১ লাখ ৫০ হাজার ও সর্বনিম্ন ২২ হাজার টাকা হার্টের রিং এর দাম — ভালো থাকুন

সর্বোচ্চ খুচরা মূল্যে ১ লাখ ৫০ হাজার ও সর্বনিম্ন ২২ হাজার টাকা হার্টের রিং এর দাম

সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সর্বোচ্চ খুচরা মূল্যে হৃদরোগীদের স্ট্যান্ট বা হার্টের রিং দেয়া শুরু হয়েছে হাসপাতালগুলোতে। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর থেকে ১৫টি কোম্পানির ৩৭ ধরনের হার্টের রিংয়ের (করোনারি স্ট্যান্ট) মার্কেটিং রিটেইল প্রাইজ (এমআরপি) নির্ধারণ করে দিয়েছে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর। স্ট্যান্টগুলোর কোয়ালিটির ওপরে ভিত্তি করে সর্বোচ্চ ১ লাখ ৫০ হাজার ও সর্বনিম্ন ২২ হাজার টাকা করা হয়েছে। এদিকে হাসপাতালগুলোতে এর মূল্য তালিকাও পাঠানো হয়েছে। নতুন এমআরপি নির্ধারণ না হওয়া পর্যন্ত এ দাম থাকবে। এ দামের অতিরিক্ত মূল্য কেউ নিলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

গতকাল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট হাসপাতাল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের কার্ডিওলজি বিভাগ ঘুরে দেখা যায়, হার্টের রিংয়ের মূল্য তালিকা টাঙানো হয়েছে। সরকারের এ ধরনের সিদ্ধান্তে রোগী ও স্বজনদের মধ্যে স্বস্তি বিরাজ করছে। এ সময় কথা হয় রাজধানীর পুরান ঢাকা থেকে আশা রোগী অনুপ হোসেনের (৪৮) ছেলে কবির হোসেনের সঙ্গে। তিনি বলেন, গত সপ্তাহে এনজিওগ্রাম করানোর পর বাবার হার্টে ব্লুক ধরা পড়ে। দুটি রিং পরানোর পরামর্শ দিয়েছিলেন চিকিৎসক। ওই রিংয়ের মূল্য প্রায় দেড় লাখ টাকা চাওয়া হয়েছিল। এত টাকা না থাকায় তিনি রিং নিতে পারেননি। কিন্তু রোববার সেই রিং প্রায় অর্ধেক মূল্যে পেয়েছি। এ ধরনের সিদ্ধান্তের কারণে সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। একই সঙ্গে হার্টের রিংয়ের মূল্যের বিষয়টি নিয়মিত মনিটরিং করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

গতকাল ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরে হার্টের রিংয়ের দাম নির্ধারণ বিষয়ে এক সভা শেষে অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এ পর্যন্ত মোট ৩৭টি আইটেমের রিংয়ের ওপর এমআরপি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ফলে এখন থেকে সব সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে বাধ্যতামূলকভাবে এমআরপি মূল্যে রোগীদের কাছে রিং বিক্রি করতে হবে। আর এ সংক্রান্ত চিঠি এরই মধ্যে ২৭টি হাসপাতালে চলে গেছে। সবাইকে মূল্য তালিকা টাঙিয়ে দিতে বলা হয়েছে। বাকিগুলোতেও পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। তিনি বলেন, এখন একটি শৃঙ্খলার মধ্যে চলে এসেছে। সরকার নির্ধারিত একটি মার্কআপ রয়েছে। এর মধ্যে ফেলে আমরা দাম নির্ধারণ করেছি। যাতে এর দাম শৃঙ্খলার মধ্যে আসে। কেউ যাতে আর মানুষের কাছ থেকে বাড়তি মূল্য নিতে না পারে। তিনি আরো বলেন, চূড়ান্ত দাম নির্ধারণের জন্য এই দামের মার্কাপটি মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। এর পরে ওখান থেকে এর চূড়ান্ত মূল্য নির্ধারিত হবে। এ তা আমরা আবার জানিয়ে দেব।

এদিকে গতকাল থেকে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে পরিবর্তিত মূল্যে রোগীদের স্ট্যান্ট দেয়া শুরু হয়েছে। হাসপাতালটির পরিচালক অধ্যাপক ডা. আফজালুর রহমান বলেন, এই হাসপাতালে সরকার নির্ধারিত মূল্যেই রোগীদের স্ট্যান্ট দেয়া হয়েছে। এমআরপি ছাড়া কোনো স্ট্যান্ট এই হাসপাতালে আসবে না। এমন কি সরকার নির্ধারিত মূল্যের বাইরে কাউকে রিং বিক্রি করতে দেয়া হবে না। এতে রোগীরা সঠিক মূল্যে চিকিৎসা সেবা পাবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্ডিওলজি বিভাগের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তারাও সরকার নির্ধারিত মূল্যে রোগীদের স্ট্যান্ট দিয়েছেন।

ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের পরিচালক রুহুল আমিন  বলেন, গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত প্রায় সব রিং আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান তাদের বিভিন্ন আইটেমের রিংয়ের এমআরপি অনুমোদন করিয়ে নিয়েছে। ফলে অনুমোদিত আইটেমের কোনোটিই ওই দামের বাইরে দেশের কোথাও বিক্রি করা যাবে না। রিংয়ের গায়ে মূল্য, উৎপাদন ও মেয়াদ উত্তীর্ণ লেখা থাকতে হবে। ঔষধ প্রশাসন থেকে এ পর্যন্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অনুক‚লে ইস্যুকৃত কার্ডিয়াক স্ট্যান্ট (হার্টে রিং)-এর সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে প্রতি একক সর্বোচ্চ মূল্য প্রায় দেড় লাখ টাকা ও সর্বনিম্ন ২২ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আমরা চাই এর একটি সুষ্ঠু সমাধান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলাদেশ মেডিকেল ডিভাইস ইমপোর্টার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি গাজী এ কে শাহীন  বলেন, আমরা প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি। সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে। আমরা কোনোভাবেই বেশি মূল্য নেই না। আমাদের কিছু লাভ রেখে তা হাসপাতালে সরবরাহ করে থাকি। এর পরে কি হয় তা আমরা বলতে পারি না।

ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের তথ্য মতে, প্রতিবছর দেশে প্রায় ১৮ হাজার হার্টের রিং প্রয়োজন হয়। এতে হার্টের এই রিং নিয়ে বাণিজ্য হয় প্রায় ২০০ কোটি টাকার বেশি।

উল্লেখ্য, সারাদেশে মানসম্পন্ন, নিরাপদ ও কার্যকরী করোনারি স্ট্যান্ট অর্থাৎ হার্টের রিংয়ের মূল্য সহজলভ্য করার লক্ষ্যে গত ১১ এপ্রিল ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর সভা ডাকে। এর পরে গত মঙ্গলবার ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের রিংয়ের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন প্রস্তাবিত দাম নির্ধারণ করে। এর পরে গত বুধবার সরকারি হাসপাতালে রিং সরবরাহ বন্ধ করে দেন। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েন রোগী ও তাদের স্বজনরা। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের সঙ্গে আলোচনার পর ধর্মঘট আহ্বানের কয়েক ঘণ্টা পরেই তা প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। কয়েক দিন ধরে রিং নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতির পর গতকাল থেকে সরকারি নির্ধারিত সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য কার্যকর হয়েছে।

ROOT

করোনার ৩ নতুন উপসর্গ হচ্ছে সর্দি, বমিভাব আর ডায়রিয়া

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থা (সিডিসি) করোনাভা্রাসের নতুন তিনটি উপসর্গ চিহিৃত করেছে। নতুন ৩ উপসর্গ হচ্ছে সর্দি, বমিভাব আর ...
Read More

করোনায় শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আসাদুজ্জামানের মৃত্যু

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মহাখালীর জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আসাদুজ্জামান মারা গেছেন। ...
Read More

করোনা উপসর্গ নিয়ে যুবকের মৃত্যু

গাজীপুরের শ্রীপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে ফিরোজ আল-মামুন (৪০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। ফিরোজ উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের মাওনা গ্রামের মৃত ...
Read More

অতিরিক্ত অর্থে মিলছে অক্সিজেন

রাজশাহীতে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। আর এর চাইতেও বেশি আছে করোনা উপসর্গ নিয়ে নতুন রোগীর সংখ্যা। এ ধরনের ...
Read More

উপসর্গে ওসমানী মেডিকেলের অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকরের মৃত্যু

সিলেটের এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মানসিক রোগ বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. গোপাল শংকর দে করোনাভাইরাসের ...
Read More

চীনের ভ্যাকসিনের ট্রায়াল হতে পারে বাংলাদেশে

করোনাভাইরাস নির্মূলে চীন আবিষ্কৃত সম্ভাব্য ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বাংলাদেশে হতে পারে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। ...
Read More

ক‌রোনায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের উপদেষ্টার মৃত্যু

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের চেঞ্জ ম্যানেজমেন্ট উপদেষ্টা আল্লাহ মালিক কাজেমী মারা গেছেন। শুক্রবার (২৬ জুন) বিকেলে এভার কেয়ার ...
Read More

রাজশাহীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে দু’জনের মৃত্যু,

প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়ে রাজশাহীতে মারা গেছেন একজন। আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে করোনার উপসর্গ নিয়ে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল ...
Read More

করোনায় মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যানের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বেসরকারি মার্কেন্টাইল ব্যাংকের উদ্যোক্তা পরিচালক ও ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সেলিম (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি ...
Read More
%d bloggers like this: